কলকাতা ও পড়শি জেলায় কোভিড পরিস্থিতি স্থিতিশীল, বেশি উদ্বেগ এখন পশ্চিম মেদিনীপুরকে ঘিরে - Nadia24x7

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Saturday, September 19, 2020

কলকাতা ও পড়শি জেলায় কোভিড পরিস্থিতি স্থিতিশীল, বেশি উদ্বেগ এখন পশ্চিম মেদিনীপুরকে ঘিরে



রাজ্যের কোভিড (Covid 19) পরিস্থিতির বিশেষ কোনো বদল নেই শুক্রবার। আক্রান্তের সংখ্যা অল্প একটু কমেছে। তবে টেস্টের সংখ্যাও অল্প কমেছে। তাই সংক্রমণের হার মোটের ওপরে স্থিতিশীল রয়েছে। তবে এ দিনও তিন হাজারের কাছাকাছি মানুষ করোনামুক্ত হয়েছেন, যার ফলে সুস্থতার হার অল্প একটু বেড়েছে।

রাজ্যের কোভিড-তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে কোভিডে (Covid 19) আক্রান্ত হয়েছেন ৩,১৯২ জন। এর ফলে রাজ্যে এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২ লক্ষ ১৮ হাজার ৭৭২। গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর ফলে রাজ্যে এখন মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪,২৪২। রাজ্যে মৃত্যুহার বর্তমানে রয়েছে ১.৯৩ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সুস্থ হয়েছেন ২,৯৬০ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ লক্ষ ৯০ হাজার ২১ জন। রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২৪,৫০৯। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সক্রিয় রোগী বেড়েছে ১৭৩ জন। রাজ্যে সুস্থতার হার আরও কিছুটা বেড়ে ৮৬.৮৬ শতাংশ হয়েছে।

সংক্রমণের হারে বিদেশ বদল নেই

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৪৫,২২৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। রাজ্যে মোট ২৬ লক্ষ ৯৯ হাজার ২৯৯টি নমুনা পরীক্ষা হল। রাজ্যে বর্তমানে প্রতি দশ লক্ষ মানুষে ২৯,৯৯২ জনের করোনা পরীক্ষা হচ্ছে।

প্রতি দিন যে সংখ্যক মানুষের পরীক্ষা হচ্ছে, তার মধ্যে যত শতাংশের কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসছে, সেটাকে বলা হচ্ছে ‘পজিটিভিটি রেট’ বা সংক্রমণের হার। শুক্রবার রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের হার ছিল ৭.০৫ শতাংশ। অন্যদিকে রাজ্যে সামগ্রিক সংক্রমণের হারটি এ দিন ৮.১০ শতাংশ হয়েছে। এই সংক্রমণের হার জাতীয় গড়ের থেকে বেশ কিছুটা কম রয়েছে।

কলকাতায় নতুন আক্রান্ত পাঁচশোর কম

দু’ দিন পর কলকাতায় সক্রিয় কোভিডরোগীর সংখ্যা বাড়লেও নতুন আক্রান্তের সংখ্যাটি পাঁচশোর নীচেই রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৯৩ জন। অন্য দিকে সুস্থ হয়েছেন ৪৬৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৪ জনের।

শহরে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪৯,০৭০। সুস্থ হয়ে গিয়েছেন ৪৩,২৬৫ জন। শহরে মোট মৃতের সংখ্যা ১,৫৫১। বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৪,২৫৪।

পড়শি চার জেলার পরিস্থিত অপরিবর্তিত

কলকাতার পড়শি চারটি জেলায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যায় বিশেষ পরিবর্তন হয়নি। মোটের ওপরে পরিস্থিতি স্থিতিশীলই রয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় উত্তর ২৪ পরগণায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫০২ জন। সুস্থ হয়ে ছাড়া পেয়েছেন ৫২৯ জন। অন্য দিকে দক্ষিণ ২৪ পরগণায় আক্রান্ত হয়েছেন ২২২ জন, ছাড়া পেয়েছেন ২৪৬ জন। হাওড়ায় ১৭১ জন নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন আর সুস্থ হয়েছেন ১৪৭ জন। অন্য দিকে হুগলিতে ১৪২ জন আক্রান্ত হয়েছেন আর ছাড়া পেয়েছেন ১১৬ জন।

পশ্চিম মেদিনীপুর-সহ কয়েকটি জেলা উদ্বেগের কারণ

পশ্চিম মেদিনীপুরে কোভিড-আক্রান্তের সংখ্যার ঊর্ধ্বগামী যাত্রা বহাল থাকল শুক্রবারও। নতুন করে এ দিন ২৩০ জন কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন এই জেলায়। এর ফলে এই জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮০০০-এর গণ্ডি ছাড়িয়েছে।

এই জেলাটি ছাড়াও নতুন আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে আরও কয়েকটি জেলা শুক্রবার উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়াল। সে গুলি হল পশ্চিম বর্ধমান (১৩১), নদিয়া (১১৯), দার্জিলিং (১১৮), বাঁকুড়া (১০৯) আলিপুরদুয়ার (১০২), পুরুলিয়া (৯৪), জলপাইগুড়ি (৯৪)। ঝাড়গ্রামে নতুন আক্রান্তের সংখ্যাটি (২৫) বাকি সব জেলার থেকে কম হলেও গত কয়েকদিন ধরে এই বৃদ্ধিটা এই জেলার ক্ষেত্রে খুব চমকপ্রদ।

স্বস্তির বার্তা দিচ্ছে যে যে জেলা

পূর্ব মেদিনীপুরে (১৪৫) নতুন আক্রান্তের সংখ্যা অনেকটা বেশি হলেও এই জেলা স্বস্তি দিচ্ছে। এর কারণ, কয়েক সপ্তাহ আগে টানা দ্বিশতাধিক আক্রান্তের খোঁজ মিলছিল এই জেলায়, সেটা এখন অনেকটাই কমেছে। একই সঙ্গে, নতুন আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে এ দিন আরও কয়েকটি জেলায় স্বস্তির কারণ হয়েছে।

সেই জেলাগুলি হল, পূর্ব বর্ধমান, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, কালিম্পং, মালদা, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর আর কোচবিহার।

Post Bottom Ad