ব্রেকিং খবরঃ অবশেষে চাপের মুখে নতিস্বীকার করে IPL এর স্পনসরশিপ থেকে সরে দাঁড়াল VIVO.. - Nadia24x7

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, August 5, 2020

ব্রেকিং খবরঃ অবশেষে চাপের মুখে নতিস্বীকার করে IPL এর স্পনসরশিপ থেকে সরে দাঁড়াল VIVO..


এবছরের আইপিএল অনুষ্ঠিত হতে চলেছে সেপ্টেম্বর মাসের 19 তারিখ থেকে। এবছর আইপিএলের টাইটেল স্পন্সর হিসেবে নাম ছিল ভিভো(VIVO)।কিন্তু সারা দেশজুড়ে চীনা পণ্য বয়কট করা যেভাবে হিড়িক দেখা গেছে তাতে চাপ সৃষ্টি হয়েছে এই চীনা মোবাইল প্রস্তুতকারক সংস্থা ওপর। তাই চাপের মুখে পড়ে আইপিএলের 13 নম্বর মরশুমে স্পনসরশিপ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল ভিভো। এর ফলে এই টুর্নামেন্টের টাইটেল স্পন্সর কে হবে সেই বিষয়ে খুব তাড়াতাড়ি ঘোষণা করা হবে বলে জানানো হয়েছে বিসিসিআই তরফ থেকে।

 

সম্প্রতি গত জুন মাসে লাদাখ সীমান্তে চীনের সেনারা ভারতীয় সেনা জওয়ানদের ওপর হামলা চালিয়ে দেয়। এতে কুড়ি জন সেনা জওয়ান শহীদ হন। এরপরে ভারত এবং চীনের মধ্যে উত্তেজনা চরমে পৌঁছে যায়। দেশের বিভিন্ন জায়গায় চীনা পণ্য বয়কট করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এমনকি কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে চীনা অ্যাপগুলি এ দেশে ব্যান করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তাই সারা দেশ যখন চীনের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে তখন আইপিএলের টাইটেল স্পন্সর ভিভো কে রাখা নিয়ে নানান তর্ক বিতর্ক সৃষ্টি হয়।

 

সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে রাজনৈতিক মহল সকলেই এর তীব্র নিন্দা করেন। এরপর নেট দুনিয়ায় ট্রেন্ডিং হয়ে যায় #BoycottIPL। এ বিষয়ে পরিস্থিতি যখন উত্তপ্ত তখন VIVO নিজেই আইপিএলের টাইটেল স্পন্সর থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল। তবে আইপিএলের সাথে VIVO এর এখনই বিচ্ছেদ ঘটছে না। এখনো পর্যন্ত আইপিএলের সঙ্গে তিন বছরের চুক্তি বাকি রয়েছে। তবে এই চীনা মোবাইল সংস্থাটি এ বছরের জন্য টাইটেল স্পন্সর হিসেবে থাকতে চান না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে।

 

এরপরে 2021, 2022, 2023 এই তিন বছর আইপিএলের সাথে যুক্ত থাকে চুক্তি শেষ করবে VIVO। এতদূর পর্যন্ত সমস্ত কিছু ঠিক ঠাক থাকলেও এ বছরে টাইটেল স্পন্সর কে হবে সে বিষয়ে উঠছে প্রশ্ন। এই বিষয়ে বিসিসিআই এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, টাইটেল স্পন্সর কে হবে সে বিষয়ে খুব তাড়াতাড়ি জানানো হবে। তবে অনেকেই মনে করছেন এই বছরে টাইটেল স্পন্সর কোন ভারতীয় কোম্পানী হতে পারে।যেহেতু করোনা আবহে আইপিএল হচ্ছে তাই এখানে বেশ কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে ক্রিকেটারদের এবং সাপোর্ট স্টাফদের।

 

UAE তে প্র্যাকটিসে নামার আগে ক্রিকেটারদের এবং সাপোর্ট স্টাফদের 5 বার করোনা পরীক্ষা হবে এবং তাতে পাশ করলেই মাঠে নামার অনুমতি দেওয়া হবে। এমনকি টুর্নামেন্ট চলাকালীন প্রতি পাঁচ দিন অন্তর অন্তর করোনা টেস্ট হবে। দেশ ছাড়ার আগে কোন ক্রিকেটারদের যদি পজিটিভ থাকে তাহলে তাকে 14 দিনের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হবে। এবং সেখানে 24 ঘন্টা অন্তর অন্তর RTPCR টেস্ট হবে। সেখানে পাশ করলেই UAE যাওয়ার অনুমতি পাওয়া যাবে। বিদেশি ক্রিকেটারদের জন্য ঠিক একই নিয়ম তাদের জোড়া টেস্ট করতে হবে। যদি রেজাল্ট পজিটিভ আছে তাহলে 14 দিনের কোয়ারেন্টাইন।

Post Bottom Ad