উপযুক্ত বদলা, বকেয়া দাবি করেও মেলেনি অর্থ, মালিকের ফোন নম্বর এসকর্ট সার্ভিসে দিলেন কর্মী - Nadia24x7

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Thursday, August 13, 2020

উপযুক্ত বদলা, বকেয়া দাবি করেও মেলেনি অর্থ, মালিকের ফোন নম্বর এসকর্ট সার্ভিসে দিলেন কর্মী

 

বর্তমানে লকডাউন কাজ খুইয়েছে অনেক কর্মীরাই। বহু জায়গায় মালিকের সাথে কর্মীদের টাকা-পয়সা নিয়ে বাক বিতন্ডা চলে। ব্যবসায়ী মানুষেরা ব্যবসায় মন্দা হবার জন্য অনেক কোম্পানি তুলে দিচ্ছেন, ফলে বেরোজগার হতে হচ্ছে বহু কর্মীকে।কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে কাউকে দোষারোপ করা যাচ্ছে না। এমনই এক ব্যবসায়ী তার ব্যবসায় মন্দা থাকার কারণে তার অফিসে কর্মরত এক ব্যক্তির প্রভিডেন্ট ফান্ডের বকেয়া মেটাতে পারেনি। দীর্ঘ বচসা এবং কথা কাটাকাটির পর কর্মী যা পদক্ষেপ নিলেন,তাতে রীতিমতো হতবাক এবং লজ্জিত হলেন ব্যবসায়ী এবং তার পরিবার। নিজের অধিকারের টাকা না পেয়ে রীতিমতো রাগের বশে মালিক এবং তার স্ত্রীকে সেক্সটয় উপহার দিলো সেই কর্মী।

 

শুধু মাত্র এখানেই শেষ নয়,মালিক এবং তার স্ত্রীর ফোন নাম্বার সোজা “এসকট সার্ভিস” হিসেবে সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল করে দেয় সে। উক্ত ব্যবসায়ীর নাম অভিনাশ প্রভু। ব্যাঙ্গালুরুতে তার জমির ব্যবসা রয়েছে। তিনি তার কর্মীর এই লজ্জাজনক পদক্ষেপের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। অবিনাশবাবুর এই কর্মীর নাম হরিপ্রসাদ যশি। পুলিশের কাছে এফআইআর-এ তিনি জানিয়েছেন যে, হরিপ্রসাদ চাইছিল যে তার পিএফ এর টাকা যেন অভিনাশ যত তাড়াতাড়ি সম্ভব মিটিয়ে দেন। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে ব্যবসায় মন্দার কারণে তা সম্ভব হয়ে ওঠেনি।

 

এছাড়াও নথিপত্র তে কিছু সমস্যা ছিল। অভিনাশ বাবু হরিপ্রসাদ কে বলেছিলেন যে, লকডাউন এবং এই পরিস্থিতি মিটে গেলে তিনি সমস্ত বিষয়টি দেখবেন। কিন্তু তার প্রস্তাবে রাজি হয়নি হরিপ্রসাদ। বিষয়টি নিয়ে ক্রমাগত অভিনাশ কে বিভিন্নভাবে বিরক্ত করতো সে। প্রতিদিনই বেশ কয়েকবার ফোন করে টাকা দেওয়ার কথা বলে।এক সময় বিরক্ত হয়ে অভিনয় বাবুর সঙ্গে হরিপ্রসাদের তুমুল অশান্তি হয়। অভিনাশ হরিপ্রসাদ কে সাফ জানিয়ে দেন যে, তিনি এই মুহূর্তে টাকা দিতে পারবেন না। যা করার করে নিতে পারে হরিপ্রসাদ।

 

এরপরই বাধে বিপত্তি। অনলাইন এসকট সার্ভিস অবিনাশবাবু এবং তার স্ত্রীর ফোন নাম্বার রেজিস্টার করে দিয়েছিল হরিপ্রসাদ। এরপর থেকেই তাদের কাছে একাধিক ফোন আসছে, যাতে বিভিন্ন অশ্লীল প্রস্তাব দেয়া হচ্ছে তাদের। এছাড়াও অবিনাশবাবুর বাড়ীতে যৌন পুতুল অর্ডার করে পাঠিয়েছিল হরিপ্রসাদ।পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করার পরেও এখনো পর্যন্ত অভিযুক্ত কে পুলিশ গ্রেফতার করেন নি। পুলিশ জানিয়েছে সমস্ত বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে,উপযুক্ত প্রমাণ পেলে অভিযুক্তকে অবশ্যই গ্রেপ্তার করা হবে।

 

Post Bottom Ad