মানব শরীরে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের ক্লিনিকাল ট্রায়ালের জন্য ডাক পেলেন পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষক - Nadia24x7

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Thursday, July 9, 2020

মানব শরীরে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের ক্লিনিকাল ট্রায়ালের জন্য ডাক পেলেন পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষক


পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুরের বাসিন্দা ৩০ বছর বয়সী শিক্ষক চিরঞ্জিত ধীবর করোনা ভাইরাস জনিত মারণ রোগ কোভিড -১৯ ভ্যাকসিনের ক্লিনিকাল ট্রায়ালে ভারতের প্রথম ব্যক্তি হিসাবে অংশ নেবেন। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে করোনা ভাইরাসের অ্যান্টিজেন গ্রহণের জন্য এই শিক্ষক ওড়িশার দিকে রওনা দেবেন বলে মনে করা হচ্ছে। আরএসএস কর্মী এই শিক্ষক কোভিড -১৯ ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য স্বেচ্ছায় নিজের শরীর দানের আবেদন জানিয়েছিলেন কাজ। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিকেল রিসার্চ (আইসিএমআর) এবং ভারত বায়োটেক তাঁর সেই আবেদনে সাড়া দিয়ে, মানব শরীরে করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগের জন্য তাঁকে চিহ্নিত করেছে।

 

নিজের ফেসবুক পেজে এই খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চিরঞ্জিত ধীবর। তিনি লিখেছেন যে, তিনি আরএসএসের নীতিগুলি দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিনের ক্লিনিকাল ট্রায়ালের জন্য তার দেহ দেশসেবার কাজে উৎসর্গ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বিভিন্ন সংবাদ সংস্থা সূত্রে জানা গেছে, এপ্রিল মাসেই ক্লিনিকাল ট্রায়ালের জন্য নিজের দেহদানের আবেদন জানিয়েছিলেন এই শিক্ষক। ৫ জুলাই, রবিবার আইসিএমআর-এর পাটনা কেন্দ্র থেকে একটি কল পেয়েছিলেন তিনি। ফোনে তাকে জানানো হয় যে, তিনি করোনা ভাইরাসের ক্লিনিকাল ট্রায়ালের জন্য নির্বাচিত করা হয়েছেন।

 

উল্লেখ্য যে, ওষুধ নিয়ন্ত্রক জেনারেল অফ ইন্ডিয়া সিডিএসসিও (সেন্ট্রাল ড্রাগস স্ট্যান্ডার্ড কন্ট্রোল অর্গানাইজেশন) রবিবার দুটি কোভাক্সিন ও জাইকোভ-ডি নামের দুটি মেড-ইন ইন্ডিয়া করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিনকে মানবদেহে ক্লিনিকাল ট্রায়ালের জন্য অনুমোদন দিয়েছে। এই দুটি ভ্যাকসিনই দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপের পরীক্ষার জন্য অনুমোদন পেয়েছে।

Post Bottom Ad