Tuesday, July 28, 2020

মানুষের কল্যাণেই পরামর্শ দিই', মুখ্যমন্ত্রীকে কড়া চিঠি রাজ্যপালের


ফের মুখ্যমন্ত্রীকে কড়া চিঠি রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের। সোমবারই করোনা টেস্টিং ল্যাবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে 'সাংবিধানিক পদে থেকে কেউ কেউ রাজ্য সরকারকে ক্রমাগত বিব্রত করছে' বলে মন্তব্য করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নাম না করলেও তাঁর অভিযোগের তির যে রাজ্যপালের দিকেই ছিল, তা বুঝতে বাকি ছিল না রাজনৈতিক মহলের৷

 

এবার চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই মুখ্যমন্ত্রীকে  চিঠি লিখে জবাব  দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়৷ চিঠির ছত্রে ছত্রে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের বিরোধিতায় ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন রাজ্যপাল। চিঠিতে রাজ্যপাল লিখেছেন, রাজ্যের মানুষের কল্যাণের জন্যই পরামর্শ দেন তিনি । যা সংবিধান স্বীকৃতও বটে । ওই চিঠিতে রাজ্যপালের বক্তব্য মোটের উপর এটাই যে রাজ্যে পুলিশি রাজ চলছে। যা এক কথায় ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির রূপ নিয়েছে

 

রাজ্যপাল চিঠিতে ফের দাবি করেছেন, 'রাজ্যের নিচুতলার প্রশাসন ব্যর্থ৷ আমি রাজনীতির জগতের কেউ নই। কিন্তু প্রশাসনের অঙ্গ। আইনের শাসন ও সংবিধান রক্ষায় আমার দায়ববদ্ধতা আছে । রাজ্য প্রশাসনের নানা বিষয়ে অবগত থাকা আমার প্রয়োজন৷ আপনার ভূমিকা সংবিধানের রীতিনীতির থেকে থেকে অনেক দূরে৷ আমার ভূমিকাকে আপনি অকেজো করতে চেয়েছেন৷ এ এক ভয়ঙ্কর অবস্থা৷'

 

চিঠির শেষে রাজ্যপাল লিখেছেন, 'গতকালের পর্ব শেষে আশা করি রাজ্যের মানুষের স্বার্থে আমরা এক সঙ্গে কাজ করব৷'

 

সোমবারের অনুষ্ঠান চলাকালীন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রীকে বলেছিলেন, ‘করোনাযুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা আমরা পেয়েছি৷ করোনা মোকাবিলায় কয়েক দফায় কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী৷ কিন্তু কেউ কেউ রাজ্যকে বিরক্ত করছে৷ সাংবিধানিক পদে থেকে রাজ্যের কাজে অসহযোগিতা করছেন যা কাম্য নয়৷ সবাই তো নির্বাচিত, সকলে মিলে আসুন না কাজ করি।’


SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.