Thursday, July 23, 2020

অ্যানড্রয়েড ও আইফোনে হাজির হল জিওমার্ট অ্যাপ, কীভাবে ব্যবহার করবেন?


চলতি বছরেই জিওমার্ট ই-কমার্স পরিষেবা শুরু করেছিল রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। এতদিন শুধুমাত্র হোয়াটসঅ্যাপ থেকেই এই পরিষেবা ব্যবহার করা যাচ্ছিল। এবার হাজির হল পৃথক জিওমার্ট অ্যাপ। এই অ্যাপ ব্যবহার করেই অ্যানড্রয়েড ও আইওএস গ্রাহকরা কেনাকাটা করতে পারবেন।

এই মুহূর্তে গোটা দেশের ২০০টি শহরে জিওমার্ট পরিষেবা শুরু হয়েছে। জিওমার্ট অ্যাপ ব্যবহার করে নেট ব্যাংকিং, ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড সহ বিভিন্ন উপায়ে পেমেন্ট করা যাবে। এছাড়াও থাকছে ক্যাশ অন ডেলিভারির অপশন। আপাতত নির্বাচিত শহরে এই পরিষেবা শুরু হলেও শীঘ্রই গোটা দেশে ই-কমার্স পরিষেবা নিয়ে আসবে মুকেশ আম্বানির কোম্পানি।

 

জিওমার্ট অ্যাপ ব্যবহার করবেন কীভাবে?

অ্যানড্রয়েড ফোনে প্লে স্টোর ও আইফোনে অ্যাপ স্টোর থেকে জিওমার্ট অ্যাপ ডাউনলোড করে ইন্সটল করতে হবে। অন্যান্য ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মের মতোই যে জিনিসগুলি কিনতে চান কার্টে যোগ করে পছন্দের উপায়ে পেমেন্ট করতে হবে। কোম্পানির দাবি জিওমার্ট থেকে কেনাকাটা করলে এমআরপি থেকে ৫ শতাংশ কম দামে কেনাকাটা করা যাবে।

 

জিওমার্টের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী?

এই মুহূর্তে জিওমার্ট থেকে মুদিখানা জিনিস, সবজি, ফল, দুগ্ধজাত পদার্থ ও ব্যক্তিগত দেখাশোনার জিনিস পাওয়া যাচ্ছে। যদিও চলতি মাসে কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা থেকে মুকেশ আম্বানি জানিয়েছেন জিওমার্ট থেকে স্বাস্থ্য, ফ্যাশন, ইলেকট্রনিক্স ও ওষুধ বিক্রি শুরু হবে।

 

ইতিমধ্যেই ভারতের ই-কমার্স বাজারে রয়েছে আমাজন, ফ্লিপকার্টের মতো বড় নাম। এছাড়াও মুদিখানা ও সবজি ডেলিভারির জন্য রয়েছে বিগ বাস্কেট, ও গ্রোফার্স। মে মাসে লঞ্চ হওয়ার পর থেকে জিওমার্টে প্রতিদিন আড়াই লক্ষ অর্ডার আসছে। সম্প্রতি এই তথ্য জানিয়েছিলেন মুকেশ আম্বানি। বিভিন্ন কোম্পানি ও ব্র্যান্ডের সঙ্গে হাত মিলিয়ে শীঘ্রই আরও বেশি মানুষের কাছে পৌঁছে যাবে জিওমার্ট।


SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.