ভারতের 81 কোটি রেশন গ্রাহকদের জন্য দুর্দান্ত সুযোগ মোদী সরকারের - Nadia24x7

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, June 16, 2020

ভারতের 81 কোটি রেশন গ্রাহকদের জন্য দুর্দান্ত সুযোগ মোদী সরকারের


সম্প্রতি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান ভারতের রেশন গ্রাহকদের জন্য সুখবর নিয়ে এলো। রামবিলাস পাসোয়ান জানান যে, রাষ্ট্রীয় খাদ্য সুরক্ষা আইন বা NFSA এর রেশন গ্রাহকদের পুষ্টিযুক্ত চাল উপলব্ধ করানোর জন্য কেন্দ্র সরকার 15 টি রাজ্যের প্রতিটি জেলায় রাইস ফর্টিকেশন এর পাইলট যোজনা শুরু করেছে। এ যোজনার অন্তর্গত রাজ্যগুলিতে পুষ্টিযুক্ত চাল বিতরণ করা হবে কেন্দ্রীয় সরকারের দ্বারা। আর ইতিমধ্যেই এই যোজনা অন্তর্গত গুজরাট, মহারাষ্ট্র, অন্ধপ্রদেশে পুষ্টিযুক্ত চাল বিতরণ করার কাজ শুরু হয়ে গেছে। এবং NFSA অনুযায়ী দেশের মোট 81 কোটি রেশন গ্রাহকদের এই চাল বিতরণ করা হবে।

 

তার সাথেই কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে আরও জানানো হয়েছে যে, পুষ্টিযুক্ত চাল বিতরণের কাজ খুব তাড়াতাড়ির মধ্যে উড়িষ্যা এবং উত্তরপ্রদেশে চালু হবে। বাকি রাজ্যগুলিতে এই যোজনা চালু করার জন্য বলা হয়েছে। এই পুষ্টিযুক্ত এই চালে থাকবে আয়রন, ফলিক এসিড, আর ভিটামিন B12 । এর ফলে রক্তাল্পতা এবং অপুষ্টির সমস্যা দূর করা সম্ভব হবে বলে জানা গেছে।রামবিলাস পাসোয়ান ভারতীয় খাদ্য নিগমকে সরকারি স্কিম অনুসারে, আমাদের দেশে ভোক্ষ্য শস্যের চাহিদা পূরণ করার জন্য দেশের প্রত্যেকটি জায়গায় এই ভোক্ষ্য শস্য চার মাস ধরে দেওয়া হবে। বর্ষার মোরসুমে কিছুটা হল ট্রান্সপোর্টের অসুবিধা হয়।

 

তাই যাতে ট্রান্সপোর্টের কোন রকম অসুবিধা না হয় তাই FCI কে দেখার জন্য নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তবে আপনাদের এই কথা জানিয়ে দেই এই সুবিধা কেবলমাত্র ‘এক দেশ, এক রেশন কার্ড’ প্রকল্পের মধ্যে পড়বে। আর আপনাদের এ কথা জানিয়ে দিয়েছে এই প্রকল্পের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের নাম নেই। রামবিলাস পাসোয়ান টুইট করে জানিয়ে দিয়েছেন যে, বর্ষা শুরু হয়ে গেছে তাই এই সময় গরিব মানুষদের যাতে খাদ্যশস্যের অভাব না হয় তার জন্য FCI কে আদেশ দেওয়া হয়েছে যাতে, দেশের প্রতিটি কোনায় আগামী চার মাস পর্যন্ত পর্যাপ্ত পরিমাণে খাদ্যশস্য মজুদ থাকে।

 

বৃষ্টির মরশুমে যাতে সাধারণ মানুষের কোন অসুবিধার সৃষ্টি না হয় তাই এমন নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে। খবর সূত্রে জানা গিয়েছে, 2020-2021 এর জন্য কৃষকদের কাছ থেকে এখন থেকেই চাল ও গম কেনা হচ্ছে। কেন্দ্র সরকারের রিপোর্ট অনুসারে, FCI 13 জুন থেকে কৃষকদের কাছ থেকে এখনো পর্যন্ত মোট 379.90 LMT গম কিনেছে। এবং 117.30 LMT ধান কিনেছে কৃষকদের কাছ থেকে। এছাড়াও আগামী 14 জুন পর্যন্ত FCI 4278 টি রেল রেকের মাধ্যমে 120 লক্ষ টন ভক্ষ শস্য ইতিমধ্যেই পৌঁছে গিয়েছে বিভিন্ন জায়গায়। এবং এর মধ্যে 4130 টি রেল রাতের যে খাদ্যশস্য ছিল সেগুলি গুদামঘরে আনলোড করা হয়ে গেছে ইতিমধ্যে।


Post Bottom Ad