পরিযায়ী শ্রমিকদের কেমন করে কাটতে হবে ট্রেনের টিকিট, নয়া নির্দেশিকা জারি, জেনে নিন - Nadia24x7

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Sunday, May 3, 2020

পরিযায়ী শ্রমিকদের কেমন করে কাটতে হবে ট্রেনের টিকিট, নয়া নির্দেশিকা জারি, জেনে নিন


করোনা ভাইরাসের মারণ সংক্রমণে দেশে একের পর এক লকডাউন পর্ব চলছে ৷ সারা দেশে সবরকমের পরিবহণ ব্যবস্থা পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে ৷ এই অবস্থায় পরিযায়ী শ্রমিকদের অবস্থা সবচেয়ে শোচনীয় ৷ ১ মে কেন্দ্র সরকার সিদ্ধান্ত নেয় এই শ্রমিকরা যাতে নিজের নিজের বাড়ি ফিরতে পারেন তাই এঁদের জন্য বিশেষ ট্রেন চলবে ৷ সেই ট্রেনের বিষয়ে ফের এক গুচ্ছ নয়া নির্দেশিকা জারি করল মন্ত্রক ৷

এর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূ্র্ণ হল টিকিট নিয়ে সিদ্ধান্ত ৷ শ্রমিক ট্রেনের জন্য বিশেষ টিকিট দেবে রেলওয়ে ৷ যাতে নির্দিষ্ট যাত্রা শুরুর ও একদম শেষের স্টেশনের নাম প্রিন্ট করা থাকবে ৷ স্থানীয় সরকার নিজেদের ব্যবস্থাপনায় সেই নির্দিষ্ট গন্তব্যের টিকিট পরিযায়ী শ্রমিকদের হাতে তুলে দেবে ৷ তারাই টিকিটের ভাড়া সংগ্রহ করবে ৷ তারপর সেই সংগৃহীত টাকা রেলওয়েকে তুলে দেবে এমনটাই জানিয়েছে রেলওয়ে মন্ত্রক ৷

যে রাজ্য থেকে ট্রেন শুরু হবে আর যে রাজ্য অবধি শ্রমিকরা পৌঁছবে তার সংখ্যার হিসেব নিয়ে রেলওয়েকে সেই সংখ্যা জানানো হবে ৷ তারপরে সেই প্রস্তাব অনুযায়ি ট্রেনের ব্যবস্থা করবে রেলওয়ে ৷

৫০০ কিলোমিটারের বেশি দূরত্বে চলবে এই ট্রেন আর শুরু আর শেষের স্টেশনেই থামবে এই বিশেষ শ্রমিক ট্রেনগুলি ৷ যে স্টেশন থেকে ট্রেনে যাত্রীরা চাপবেন সেখানে শারীরিক পরীক্ষা করা হবে আরোহীদের ৷ যাদের শরীরে করোনা ভাইরাসের লক্ষণ নেই তারাই এই ট্রেনে চাপতে পারবেন ৷

রাজ্য সরকাররা স্যানেটাইজড বাসে করে শ্রমিকদের ব্যাচে ব্যাচে রেলওয়ে স্টেশনে নিয়ে আসবেন ৷ এক একটি ট্রেনে সবচেয়ে বেশি ১২০০ জন করে পরিযায়ী শ্রমিক চাপবেন ৷ যে রাজ্য থেকে ট্রেন ছাড়বে তারা ট্রেনের যাত্রীদের জন্য খাবার প্যাকেট ও জলের ব্যবস্থা করবেন ৷ ১২ ঘণ্টার বেশি যাত্রায় একজন যাত্রী পিছু একটি করে ফুড প্যাকেট দেওয়া হবে ৷


যাত্রীদের ়যাত্রা সূচনাকারী স্টেশনে আরোগ্য সেতু অ্যাপ নামাতে অনুরোধ করবে সংশ্লিষ্ট সরকার ৷ দেখে নিন রেলওয়ের সম্পূর্ণ নির্দেশাবলী ৷

Post Bottom Ad