পরিযায়ী শ্রমিকদের ট্রেনের ভাড়া দেবে কংগ্রেস, ঘোষণা সনিয়ার - Nadia24x7

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Monday, May 4, 2020

পরিযায়ী শ্রমিকদের ট্রেনের ভাড়া দেবে কংগ্রেস, ঘোষণা সনিয়ার



পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করলেও রেলমন্ত্রক জানিয়ে দিয়েছিল তাঁদের ভাড়া দিতে হবে। নইলে কোনও রাজ্য সরকারও তাদের রাজ্যের শ্রমিকদের ফেরাতে ভাড়ার টাকা দিতে পারে। কেন্দ্রের এই ‘অসংবেদনশীল’ সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করে সর্বভারতীয় স্তরে সাবেক দলের সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী জানিয়ে দিলেন, পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য ট্রেনের ভাড়া দেবে কংগ্রেস।
কংগ্রেস দলনেত্রীর কথায়, “দেশবাসীর সেবায় ও তাঁদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে একাত্ম থাকতে এটাই হবে কংগ্রেসের তরফে বিনীত সাহায্য”।

স্বাধীনোত্তর সময়ে কোনও একটি রাজনৈতিক দল এ হেন এবং এত বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে কখনও শোনা যায়নি। কেন্দ্র থেকে ক্ষমতা হারানোর পর কংগ্রেসের আর্থিক অবস্থা খুব একটা ভাল নয়। অন্তত বিজেপির তুলনায় তো নয়ই। কিন্তু তার পরেও সনিয়া গান্ধী তথা কংগ্রেস যে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে তার নেপথ্যে রাজনীতির উর্ধ্বেও আবেগ রয়েছে বলেই অনেকের মত।

সনিয়া গান্ধী সোমবার সকালে এক বিবৃতিতে বলেন, আমাদের শ্রমিক ও মজুররাই রাষ্ট্রকে বৃদ্ধির পথে নিয়ে যাওয়ার অগ্রদূত। এ দেশের সরকার বিনামূল্যে বিদেশে আটকে থাকা ভারতীয়দের প্লেনে করে দেশে ফেরাতে পারে, গুজরাতে শুধু একটি প্রকল্পের জন্য খাদ্য ইত্যাদি পরিবহণে একশ কোটি টাকা খরচ করতে পারে, রেল মন্ত্রক পিএম কেয়ারস তহবিলে ১৫১ কোটি টাকা দান করতে পারে, অথচ শ্রমিক-মজুরদের জন্য এর ভগ্নাংশ টাকা খরচ করতে পারে না!

তাঁর কথায়, কেন্দ্রের সরকার মাত্র চার ঘন্টার নোটিশে দেশে লকডাউন করেছে। ফলে পরিযায়ী শ্রমিকরা বাড়ি ফেরার সুযোগটুকু পাননি। ‘৪৭ সালে দেশ ভাগের পর এত খারাপ অবস্থা দেখা যায়নি। খাবার নেই, ওষুধ নেই, অর্থ নেই – লক্ষ লক্ষ লোক তাঁদের পরিবার ও ভালবাসার মানুষের কাছে পৌঁছতে খালি পেয়ে হেঁটে চলেছেন। এখনও দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বহু লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিক, মজুর আটকে রয়েছেন। যাঁদের কাছে বাড়ি ফেরার জন্য ন্যূনতম টাকা নেই।

সনিয়া জানিয়েছেন, প্রতিটি প্রদেশ কংগ্রেস কমিটি তাদের রাজ্যের শ্রমিকদের ফেরানোর ব্যাপারটি দেখভাল করবে। যে সব শ্রমিকদের ট্রেনের ভাড়া দেওয়ার সামর্থ্য নেই, তাঁদের ভাড়ার টাকা যোগাবে সেই রাজ্যের প্রদেশ কংগ্রেস। এই মর্মে সমস্ত প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির কাছে বার্তা পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে এআইসিসি।

Post Top Ad