দুঃসময়ে বন্ধুর মতো বাংলাদেশের পাশে দাঁড়াল ভারত - Nadia24x7

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Saturday, April 11, 2020

দুঃসময়ে বন্ধুর মতো বাংলাদেশের পাশে দাঁড়াল ভারত


দুঃসময়েই তো বন্ধ চেনা যায়! আরও একবার বাংলাদেশের পাশে বন্ধুর মতো দাঁড়াল ভারত। করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়নি এখনও পর্যন্ত। তবে গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ম্যালেরিয়ার প্রথাগত ওষুধ হাইড্রক্সিক্লরোকুইন করোনা রোগীদের চিকিতসায় ভাল কাজ করছে। বিশ্বে মোট উত্পাদিত হাইড্রক্সিক্লরোকুইন ওষুধের ৭০ শতাংশ হয় ভারতে। তাই এই দুর্দিনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ভারতের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। এমনকী, শক্তিশালী আমেরিকাও এই সময় ভারতের উপর নির্ভরশীল। ইতোমধ্যেই এই ওষুধের জন্য ৩০টিরও বেশি দেশ ভারতের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে।

গুজরাটের তিনটি কারখানা থেকে হাইড্রক্সিক্লরোকুইনের অন্তত কোটি ৯০ লাখ ডোজ যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম ধাপে রপ্তানির প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ইতিমধ্যে জানিয়েছেন, তিনি আমেরিকারর করোনা আক্রান্ত মানুষদের জন্য ২৯ মিলিয়ন হাইড্রক্সিক্লরোকুইন ওষুধ আমদানি করবেন। আর ওষুধের জন্য তিনি ভারতকে হুমকি দিতেও ছাড়েননি। যদিও পরে অবশ্য তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় পাশে থাকার জন্য ভারতকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশে এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪২৪। মারা গিয়েছেন ২৭ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩৩ জন। এর মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশকে আপাতত ২০ লাখ হাইড্রক্সিক্লরোকুইন দিয়ে সাহায্য করবে ভারত। ব্রাজিল, কানাডা এবং জার্মানিকে ৫০ লাখ হাইড্রক্সিক্লরোকুইন ট্যাবলেট দেবে ভারত। নেপালকে দেওয়া হবে ১০ লাখ, ভুটানকে দুলাখ, শ্রীলঙ্কা ১০ লাখ, আফগানিস্তান লাখ এবং মালদ্বীপকে দেওয়া হবে দুলাখ ওষুধ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন জানিয়েছে, কোভিড-১৯ এর সম্ভাব্য প্রতিষেধক হিসাবে হাইড্রক্সিক্লরোকুইন ভাল কাজ করছে। তার পর থেকেই এই ওষুধের চাহিদা তুঙ্গে। বহু দেশ ভারতের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে হাইড্রক্সিক্লরোকুইন ওষুধের জন্য।

Post Bottom Ad