Wednesday, April 29, 2020

ইরফান খানের মৃত্যুতে শোক গোটা দেশে


মাত্র চার দিন আগে মারা গিয়েছিলেন তাঁর মা। আজ, বুধবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন বলিউড অভিনেতা ইরফান খানও। প্রিয় অভিনতার মৃত্যুতে গোটা দেশেই শোকের ছায়া। বলি অভিনেতা থেকে রাজনৈতিক নেতা, ইরফানের মৃত্যুতে শোকে মুহ্যমান সকলেই।
জয়পুরের দামাল ছেলে ইরফান আসলে দেহ মনে ছিলেন এক ক্রিকেটার। সুযোগ মিলেছিল সিকে নাইডু ট্রফিতে খেলার। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে সুযোগ পেয়েও খেলা চালিয়ে যেতে পারেননি। একটা দরজা বন্ধ হলে খুলে যায় আরেকটা দরজা। ন্যাশানাল স্কুল অফ ড্রামায় পড়ার সুযোগ পান ইরফান। সেই সাফল্যের যাত্রাটা শুরু। আক্ষেপ একটাই , বড় তাড়াতাড়ি চলে গেলেন ইরফান। তাঁর মৃত্যুকে বিশ্ব সিনেমার ক্ষতি বলেই মনে করছেন অমিতাভ বচ্চন।
তিনি আজ টুইটারে লিখেছেন, "ইরফান আমাদের বড় তাড়াতাড়ি ছেড়ে চলে গেল। একটা বড় শূন্যতা তৈরি করে দিল এই মৃত্যু। ইরফান খুব উদার সহকর্মী ছিলেন, আর ওঁর প্রতিভা ছিল আকাশচুম্বী।"
ইরফানের মৃত্যুতে মুছেছে রাজনীতির দূরত্বও। দলমত নির্বিশেষে বহু হেভিওয়েট নেতামন্ত্রীও শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, "আমি স্তম্ভিত ওঁর চলে যাওয়ার খবরে। ওঁর কাজ আমাদের হৃদয়ে থাকবে। আমি ওঁর আত্মার শান্তি কামনা করি।" শেষশ্রদ্ধা জানিয়েছেন রাহুল গান্ধিও।


বলিউডের তরুণ অভিনেতা অভিনেত্রীদের চোখেও জল ইরফানের চলে যাওয়ায়। তাপসী পান্নু টুইটারে লিখছেন, "এই লকডাইনে আমরা ভাবছিলাম এর থেকে খারাপ কিছু হতে পারে না। তখন জানতে পারলাম আপনি আর নেই। আমার মনে হয় আমি কখনও ভেবেই উঠতে পারব না যে আপনি নেই। আমি সবসময়ে জানব আমাদের পাশেই আছেন আপনি। প্রিয় ইরফান আপনি ছিলেন সবার সেরা।"

ইরফানের মৃত্যুতে চোখে জল দীর্ঘদীনের বন্ধু অজয় দেবগনের চোখেও জল। ইরফানের পরিবারের প্রতি নিজের সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন তিনি।


২০১৮ সাল থেকেই কোলন ক্যানসারের সঙ্গে লড়ছিলেন ইরফান। জীবন যেন করতলে রাখা আমলকি, লড়তে লড়তে হাসতেন সেভাবেই। বলতেন, এই প্রথম তারিয়ে তারিয়ে জীবনের স্বাদ উপভোগ করছি। চেরির স্বাদগ্রহণ এত তাড়াতাড়ি ফুরলো ইরফান!

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.